এবার ঘটলো বইয়ে নামে সরকারী টাকা হরি লুট! – DesherDinkal

এবার ঘটলো বইয়ে নামে সরকারী টাকা হরি লুট!

মনে আছে রূপপুরে সেই বালিশ কিনতে খরচ দেখানো হয়েছিল ৫ হাজার ৯৫৭ টাকা?আর এবার সেখানে সাড়ে পাঁচ হাজার টাকার বই কিনতে খরচ দেখানো হয়েছে ৮৫ হাজার ৫০০ টাকা। বই কেনার অভিযোগ উঠেছে স্বাস্থ্য অধিদফতরের বিরুদ্ধে। ‘প্রিন্সিপাল অ্যান্ড প্র্যাকটিস অব সার্জারি’ নামের এই বইটির মূল্যই প্রকূত মূল্যের থেকে অনেক গুণ বেশি। বইটি পড়ানো হয় সার্জারির ছাত্র ও শিক্ষানবিশদের।১০টি কপি গোপালগঞ্জের শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের জন্য ক্রয় করেছে।

সেখানে প্রতিটি বইয়ের মূল্য দেখানো হয়েছে ৮৫ হাজার ৫০০ টাকা। অর্ধাৎ মাত্র ১০টি বইয়ে খরচ দেখানো হয়েছে ৮ লাখ ৫৫ হাজার টাকা। অথচ এই বইটির বাজার মূল্য মাত্র সাড়ে ৫ হাজার টাকা। শুধু এই বইয়ের বেলায়ই নয় বাজারমূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে আরও কয়েকটি বই কিনেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

সাতটি মেডিকেল কলেজের জন্য গ্রেজ অ্যানাটমি নামে ৯৫টি বই কিনেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। বইটির প্রতি কপির বাজারমূল্য ৫ হাজার থেকে ৭ হাজার টাকা।কিন্তু স্বাস্থ্য অধিদফতরের করা বিলে প্রতিটি বইয়ের মূল্য পরিশোধ দেখানো হয়েছে ৪৩ হাজার টাকা করে। মোট ৯৫টি বই কেনা হয়েছে। যেখানে মোট খরচ দেখানো হয়েছে ৪০ লাখ ৮৫ হাজার টাকা!

বাজার মূল্যের চেয়ে অন্তত সাত গুণ বেশি দামে বইটি কিনেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। একইভাবে প্রায় ৫ গুণ বেশি দামে বার্ন অ্যান্ড লেভি ফিজিওলোজি নামের বইটির ৬৫টি কপি কিনেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।প্রতিটি বই ২০ হাজার ৪৮০ টাকায় দেশের পাঁচটি মেডিকেল কলেজের জন্য কেনা হয়েছে। জানা গেছে, বইটির বাজারমূল্য ৪ হাজার থেকে ৬ হাজার টাকা!

একই অভিযোগ ‘অর্থোডোনটিক মেটারিয়াল সায়েন্টেফিক অ্যান্ড ক্লিনিক্যাল অ্যাসপেক্টস’ নামে বইটি কেনার বেলায়। মুগদা মেডিকেলের জন্য এ বইয়ের ৩টি কপি কিনেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *