সুন্দরী তরুণীদের টার্গেট করত হ্যাকার মাসুদ ! – DesherDinkal

সুন্দরী তরুণীদের টার্গেট করত হ্যাকার মাসুদ !

উচ্চ মাধ্যমিকের পরে আর পড়াশোনা করা হয়নি সামির আল মাসুদের। তবে ফেসবুক আসক্তি থেকে একসময় জড়িয়ে পড়েন হ্যাকিং গ্রুপে। কাজ করতেন অ্যানোনিমাস হ্যাকিং গ্রুপের সদস্য হয়ে। হ্যাকিং করা শুরু করেন জনপ্রিয় তরুণ মডেল-অভিনেত্রী ও উঠতি তারকাদের ফেসবুক আইডি।

এই তরুণ হ্যাকার জনপ্রিয় তরুণ মডেল-অভিনেত্রী ও উঠতি তারকাদের ফেসবুক আইডি হ্যাক করে নিজের দখলে নিতেন। এর পর তারকাদের ফেসবুক ইনবক্সে, হুমকি দিতেন স্পর্শকাতর ছবি ও তথ্য ছড়িয়ে দেওয়ার। আইডি ফিরিয়ে দিতে দাবি করতেন মোটা অঙ্কের টাকা।

অনেক সময় টাকা দিয়েও আইডি ফেরত পাওয়া যেত না ২৩ বছরের হ্যাকার সামির কাছ থেকে। সবশেষ তার আক্রমণের শিকার হন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮-এর প্রথম রানারআপ নিশাত নাওয়ার সালওয়া। ফেসবুক আইডি দখলে নেওয়ার পর নিশাতের কাছে টাকা দাবি করেন সামির। তবে ১০ হাজার টাকা দেওয়ার পরও নিজের আইডি ফেরত পাননি এ মডেল।

পরে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্র্যান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগের শরণাপন্ন হন তিনি। এদিকে রমনা থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি মামলায় গতকাল বুধবার ঢাকার খিলক্ষেতের একটি বাসা থেকে সামির আল মাসুদকে গ্রেপ্তার করে সাইবার ক্রাইম বিভাগ।

সিটিটিসির সাইবার ক্রাইম বিভাগের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ইশতিয়াক আহমেদ জানান, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে লেনদেনের সূত্র ধরে সামিরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। জনপ্রিয় ও উঠতি নারী মডেলদের টার্গেট করতেন তিনি। তারকাদের ফেসবুক আইডি নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার বিষয়ে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য দিয়েছেন এ হ্যাকার।

সাইবার ক্রাইম বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সাম্প্রতিক সময়ের জনপ্রিয় অন্তত ৩০ অভিনেত্রী ও মডেলের ফেসবুক আইডি নিয়ন্ত্রণে নেন সামির আল মাসুদ।

গ্রেফতারের পরে এই প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে জানিয়েছেন টাকা দিয়ে অনেকে নিজেদের আইডি ফেরত পান। জনপ্রিয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী পূজা চেরী, টিভি অভিনেত্রী শারলিনা হোসেন, শাহতাজ মুনিরা হাশেম, উপস্থাপিকা ও মডেল মারিয়া নূর এবং এক সময়ের জনপ্রিয় অভিনেত্রী তমালিকা কর্মকারের ফেসবুক আইডিও নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছিলেন তিনি।

পরে টাকা দাবি করে এসব মডেল-অভিনেত্রীদের হুমকি দেওয়া হয়। টাকা পাওয়ার পর এদের অনেকের আইডি ফিরিয়ে দেন হ্যাকার সামির।বেশিরভাগ ক্ষেত্রে ১০ হাজার থেকে শুরু করে ৩০ হাজার টাকার বিনিময়ে আইডি ফেরত দেওয়া হয়। কখনো কখনো এর বেশি টাকায়ও দফারফা হতো।

সাইবার ক্রাইম বিভাগ সূত্রে আরও জানা গেছে, ফেসবুক আইডি হ্যাক করা সামির আল মাসুদ হ্যাকিং গ্রুপ অ্যানোনিমাসের সদস্য। উচ্চ মাধ্যমিক পর্যন্ত পড়লেও নিজেকে পরিচয় দেন একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী হিসেবে।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) তাকে আদালতে তোলা হবে। এর আগে চলতি বছরের ২ ফেব্রুয়ারি কলাবাগান থানার আরেকটি মামলায় প্রথমে সাইবার মনিটরিং টিমের হাতে গ্রেফতার হন হ্যাকার সামির। প্রায় দেড় মাস কারাগারে থাকার পর গত ২৫ মার্চ জামিনে বের হয়ে আবারও নারী মডেল-অভিনেত্রীদের টার্গেট করা শুরু করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *